রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ ইং, বাংলা ১৬, ফাল্গুন ১৪২৭
  • ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি
  • ১৫৯৪৫৫৯১১২

ফেসবুকে মন্তব্য করায় ব্যবসায়ীর মাথায় কোপ!

ফেসবুকে মন্তব্য করায় ব্যবসায়ীর মাথায় কোপ!

প্রতীকী ছবি

জীবন নামে একটি ফেসবুক আইডিতে একটি লেখার ওপর মন্তব্য করে ওই আইডির মালিক ও তাঁর লোকজন কুপিয়ে গুরুত আহত করে মামুন ফকির (৪৫) নামে এক ব্যবসায়ীকে। গতকাল শনিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের কালিয়াপড়া বাজারে। এ ঘটনায় আজ রবিবার আতাউল্লাহ, শাকিল মিয়া, সুমন মিয়াসহ আটজনকে অভিযুক্ত করে মামলা হয়েছে।

আহত মামুন ফকির জানান, তিনি কালিয়াপাড়া বাজার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের অধিকার রক্ষা কমিটির সাথে জড়িত। এ ছাড়া যারা বাজারের সরকারি জমি দখল করে অবৈধ স্থাপনা গড়ে তুলে ভাড়ায় খাটাচ্ছেন তাঁদেরকে উচ্ছেদ করার আন্দোলন করছেন। স্থানীয় ও জেলা প্রশাসনে স্মারকলিপি দিয়েছেন। করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর মাঠপর্যায়ে তাঁদের আন্দোলন বন্ধ হয়ে যায়। তবে অধিকার রক্ষা কমিটির নামে একটি ফেসবুক গ্রুপ খুলে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। ওই গ্রুপে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের দুরবস্থার কথা তুলে ধরছেন।

সম্প্রতি ফেসবুকের অন্য একটি ঠিকানা থেকে কালিয়াপাড়া বাজারের আশেপাশে জুয়াখেলা হচ্ছে বলে একটি পোস্ট করা হয়। ওই পোস্টের নিচে মন্তব্য লেখেন মামুন ফকির। ওই মন্তব্য লেখার পর থেকে মামুনকে খুঁজতে থাকে তাঁর প্রতিপক্ষরা। গত শনিবার কালিয়াপাড়া বাজারে সদাই কেনার সময় ১০-১২ জন লোক লাঠিসোঁটা নিয়ে মামুনের ওপর চড়াও হয়। কুপিয়ে তাঁকে জখম করা হয়। লোকজন তাঁকে শনিবার রাতেই নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন।

উপজেলা মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন তিনি ঘটনাটি শুনেছেন। ঢাকায় অবস্থান করায় কোনো পদক্ষেপ নিতে পারেননি।

নান্দাইল মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনসুর আহমেদ বলেন, ফেসবুকে মন্তব্য ও কালিয়াপাড়া বাজার নিয়ে দুই পক্ষের পূর্ব বিরোধের ঘটনা নিয়ে মারধরের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। এ ঘটনায় মামলা নথিভুক্ত হয়েছে।

ট্যাগস:


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়