রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১ ইং, বাংলা ২৩, ফাল্গুন ১৪২৭
  • ঢাকা টাইমস নিউজ ডেস্ক
  • ১৫৯২১১৯৭৪৮

মধ্যযুগীয় কায়দায় ঠাকুরগাঁওয়ে দুই শিশুকে নির্যাতন

মধ্যযুগীয় কায়দায় ঠাকুরগাঁওয়ে দুই শিশুকে নির্যাতন

ছবি: মধ্যযুগীয় কায়দায় ঠাকুরগাঁওয়ে দুই শিশুকে নির্যাতন

মোবাইল ফোন চুরির দায়ে গ্রাম্য সালিসে দুই শিশুকে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের ঘটনায় ইউপি সদস্য জহিরুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৩ ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ উপজেলায়।

জহিরুল ইসলাম উপজেলার সেনগাঁও ইউনিয়নের ৪ ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও ওই গ্রামের সোহরাব আলীর ছেলে।

রবিবার (১৪ই জুন ) গভীর রাতে র‌্যাবে একটি দল অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে।

র‌্যাব-১৩ কোম্পানি কমান্ডার লে.কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মামুন গ্রেফতারের বিষটি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, এই ঘটনার পর জহিরুল আত্মগোপনে ছিল। অভিযান চালিয়ে তাকে রাণীশংকৈল উপজেলার কাজির হাট থেকে গ্রেফতার করা হয়। সেই এই মামলার প্রধান আসামী। তাকে পীরগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে মোবাইল ফোন চুরির দায়ে গ্রাম্য সালিসে দুই শিশুকে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় পীরগঞ্জ উপজেলার সেনগাঁও ইউনিয়নের দেওধা গ্রামের ইউপি সদস্যসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়। পীরগঞ্জ উপজেলার গৃহবধু শরিফা জানান স্বামীর বড় ভাই মোতালেব আলী তাকে খারাপ প্রস্তাব দেয়। এতে তিনি রাজি হননি। শেষে তাকে ঘায়েল করার জন্য ১১-১২ বছর বয়সী ছেলে সুমন ও চাচাতো দেবরের ছেলে কামরুল ইসলামকে গত ২২শে মে মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে আটক করে গ্রাম্য সালিশের বৈঠক আয়োজন করে।

ট্যাগস:


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়