মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১ ইং, বাংলা ৪, জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
  • ঢাকা টাইমস নিউজ ডেস্ক
  • ১৫৯১০৮০৭৪৬

রাশিয়ায় করোনাভাইরাসের ‘গেম চেঞ্জার’ ওষুধের অনুমোদন

রাশিয়ায় করোনাভাইরাসের ‘গেম চেঞ্জার’ ওষুধের অনুমোদন

মহামারী (কভিড-১৯) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য একটি ‘গেম চেঞ্জার’ নামক ওষুধের অনুমোদন দিয়েছে রাশিয়া। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, দেশটিতে আগামী সপ্তাহ থেকে ওই ওষুধের মাধ্যমে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা শুরু করার প্রস্তুতি চলছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, রাশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কভিড-১৯ (করোনাভাইরাস) রোগের চিকিৎসায় অ্যাভিফ্যাভির ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে। প্রথম ধাপের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে প্রত্যাশিত ফলাফল পাওয়ার পরই এটি ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়।

যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পর সবচেয়ে বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে রাশিয়ায়। জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা  ৪ লাখ ১৪ হাজারের বেশি। মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৮৪৯ জনের। এমন সময় ‘গেম চেঞ্জার’ ওষুধ খুঁজে পাওয়ার দাবি করলো দেশটি।

অ্যাভিফ্যাভির হচ্ছে ফ্যাভিপিরাভিরের পরিবর্তিত সংস্করণ। ফ্যাভিপিরাভির জাপানে ফ্লুর চিকিৎসার জন্য ব্যবহৃত হয়। কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য এটিকে সংস্কারের মাধ্যমে অ্যাভিফ্যাভির তৈরি করেছে রাশিয়া।

এদিকে রাশিয়ার  দাবি, ‘এটি কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে বিশ্বের সবচেয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ প্রতিষেধক।’ এর ফর্মুলা দ্রুতই বিশ্বকে জানানো হবে। একইসঙ্গে জুন মাসের মধ্যে রাশিয়ার হাসপাতালগুলোতে সরবরাহ করা হবে ওষুধটির ৬০ হাজার ডোজ।

রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (আরডিআইএফ) ওষুধটি রাশিয়ান ফার্মাসিউটিক্যাল ফার্ম চেমরারের সঙ্গে যৌথভাবে তৈরি করেছে। আরডিআইএফ বলছে, প্রথম ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সারিয়ে তুলতে অ্যাভিফ্যাভির খুবই কার্যকর বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে।

আরডিআইএফ প্রধান কিরিল দিমিত্রিয়েভ বলেন, ওষুধটি ব্যবহারের চারদিন পর ৬৫ শতাংশ রোগীর শরীরে ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের চূড়ান্ত ধাপে বর্তমানে ৩৩০ জন রোগীর ওপর এটি প্রয়োগ করা হচ্ছে। ১১ জুন থেকে এই ওষুধ দিয়ে  আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা শুরু হবে।


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়