রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১ ইং, বাংলা ২৩, ফাল্গুন ১৪২৭
  • ঢাকা টাইমস নিউজ ডেস্ক
  • ১৫৯০৩৯১৪৫০

সেমাই বিক্রির লাভের ভাগ নিয়ে ছুরিকাঘাতে চাচা খুন

সেমাই বিক্রির লাভের ভাগ নিয়ে ছুরিকাঘাতে চাচা খুন

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় ঈদ উপলক্ষে লাচ্ছা সেমাই বিক্রির লাভের ৪০০ টাকা ভাগাভাগি নিয়ে ভাতিজার ছুরিকাঘাতে চাচা খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। রোববার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে শিবগঞ্জ উপজেলার দেউলী ইউনিয়নের বিহারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় পুলিশ ভাতিজা রনি মিয়া (২২) ও তার বাবা শাহিনুর মিয়াকে (৪৫) আটক করেছে। নিহত চাচার নাম শামীম হোসেন (৩৫)।  নিহত শামীম হোসেন বিহারপুর গ্রামের বাসিন্দা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিহারপুর গ্রামের বড়ভাই শাহিনুর ইসলাম ও ছোট ভাই শামিম হোসেন মিলে ঈদ উপলক্ষে লাচ্ছা সেমাই ও নারিকেল বিক্রির ব্যবসা করেন। রোববার সন্ধ্যায় বেচাকেনা শেষে বাড়িতে লাভের টাকা ভাগাভাগি করতে বসেন তাঁরা। ভাগাভাগির পর ছোট ভাই শামীম লাভের আরও ৪০০ টাকা দাবি করেন। এ নিয়ে বড়ভাইয়ের সঙ্গে কথাকাটাকাটি ও বাগ্‌বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এ সময় বাবা শাহিনুর ইসলামের পক্ষ নিয়ে রনি মিয়া উত্তেজিত হয়ে চাচা শামীম হোসেনকে ছুরিকাঘাত করেন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় শামীমকে উদ্ধার করে বগুড়ার টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। পরে প্রতিবেশীরা শাহিনুর ও রনিকে আটক করে থানায় খবর দিলে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে তাঁদের হেফাজতে নেয়।

এ সময় শাহিনুরের ছেলে রনি মিয়া বাবার পক্ষ নিয়ে চাচা শামীমের পেটে ছুরিকাঘাত করেন। পরে প্রতিবেশীরা গুরুতর আহত শামীমকে ঠেঙ্গামারা টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে প্রতিবেশীরা শাহিনুর ও রনিকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদেরকে হেফাজতে নেন।

শিবগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, সেমাইয়ের ব্যবসার লাভের ৪০০ টাকা নিয়ে বিরোধের জের ধরে রনি তার চাচাকে ছুরিকাঘাত করে খুন করেছেন। ঘটনার পর পরই রনি ও তার বাবা শাহিনুরকে আটক করা হয়েছে।

ট্যাগস:


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়